সিরাজগঞ্জে চাঞ্চল্যকর শিশু ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১২

0
12

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকেই দেশের সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে সব ধরণের অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। জঙ্গী, সন্ত্রাসী, সংঘবদ্ধ অপরাধী, ছিনতাইকারী, জুয়ারি, মাদক ব্যবসায়ী, খুন, ধর্ষণ এবং অপহরণসহ বিভিন্ন চাঞ্চল্যকর মামলার আসামী গ্রেফতারে র‌্যাব নিয়মিত অভিযান চালিয়ে আসছে।

গত ০৮ নভেম্বর ২০২১ তারিখে জনৈক শিশু কন্যা সিরাজগঞ্জ জেলার তাড়াশ থানাধীন বারুহাস বাজার হতে সাবান কিনে নিজ বাড়ীতে ফেরার পথে আসামীর হাতে থাকা প্লাস্টিকের দুধের বোতল স্থানীয় শরিফ চৌধুরীর বাড়ীতে পৌঁছে দিতে বলে। শিশুটি সরল মনে দুধের বোতলটি নিয়ে ঐ বাড়ীতে প্রবেশ করে। পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী ধর্ষক মোঃ খলিল শিশুটির পিছু নিয়ে ঐ বাড়ীতে প্রবেশ করে। উল্লেখ্য যে ধর্ষক মোঃ খলিল জানতেন উক্ত সময়ে শরিফ চৌধুরীর বাড়ীতে কোন লোকজন ছিলেননা। এই সুযোগে ধর্ষক মোঃ খলিল জনৈক শিশুর মুখে গামছা বেধে শরিফ চৌধুরীর বাড়ীর দোতালার বেলকুনিতে জোর পূর্বক ধর্ষন করে। উক্ত সময়ে হঠাৎ বাড়ীর লোকজন আসলে আসামী খলিল কৌশলে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে মেয়েটির পরিবার সিরাজগঞ্জ জেলার তাড়াশ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ সংশেধনী ২০০৩ এর ৯(১) ধারায় মামলা করে যার নং-০৮ তারিখ ১১/১১/২০২১ উক্ত ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি করে।

পরবর্তীতে মেয়েটির পরিবার আসামী গ্রেফতারে র‌্যাব-১২ এর সহযোগীতা চাইলে র‌্যাব-১২ এর এ্যাডজুটেন্ট ও অপ্স অফিসার সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান নেতৃত্বে র‌্যাব-১২ এর বিভিন্ন গোয়েন্দা তথ্য এবং আধুনিক তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে ধর্ষন মামলার এজাহার ভুক্ত পলাতক আসামী খলিল কে ২২/১১/২০২১ তারিখ সকাল ০৮.০০ ঘটিকার সময় সিরাজগঞ্জ সদর থানাধীন এলাকা হতে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ খলিল(৫৫), পিতা মৃত মরু মন্ডল, সাং ঠেংগা, পাকুরিয়া, থানা- সিংড়া, জেলা- নাটোর। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে। গ্রেফতারকৃত পলাতক আসামীকে সিরাজগঞ্জের তাড়াশ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।