বুধবার, জুলাই ৬, ২০২২
বাড়ি প্রচ্ছদ

বাঘা থেকে গণধর্ষণ মামলার পলাতক প্রধান আসামী রিপন গ্রেফতার

0

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি
গণধর্ষণ মামলার পলাতক প্রধান আসামী রিপন আলীকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৫। মঙ্গলবার (৬ জুলাই) রাত ২টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার হোসেনপুর পূর্বপাড়ার ফজলুল হকের বাড়ির সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। রিপন আলী চারঘাট উপজেলার চাঁদপুর কাকড়ামাড়ী গ্রামের মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে।
জানা যায়, জনৈক টিএমএসএস এক কর্মী ২০২১ সালের ২৯ ডিসেম্বর রাত ৮টার দিকে সদস্যদের বাড়ি থেকে কিস্তির ৪৬ হাজার ৮৫০ টাকা সংগ্রহ করে বাড়ি ফেরার পথে রিপন আলীসহ আরো দুইজন তার পথরোধ করে জোরপূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে তাকে একটি অজ্ঞাত আমবাগানে নিয়ে জোরপূর্বক পালাক্রমে গণধর্ষণ করে এবং তার কাছে থাকা টাকা, মোবাইল, স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নিয়ে অচেতন অবস্থায় রেখে পালিয়ে যায়। পরের দিন তাকে উদ্ধার করে হাসপতালে ভর্তি করা হয়। তিনি সুস্থ্য হয়ে ২০২২ সালের ৯ জানুয়ারী চারঘাট মডেল থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়। এই মামলার প্রধান আসামী রিপন আলী দীর্ঘদিন থেকে পলাতক ছিল।
র‌্যাব-৫ এর কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফরহাদ হোসেন, কোম্পানী উপ-অধিনায়ক সহকারী পুলিশ সুপার রফিকুল ইসলামেরর নেতৃত্বে সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্পের একটি অপারেশন দল অভিযান পরিচালনা করে তাকে গ্রেফতার করে। র‌্যাবের একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

রাজশাহীতে অনুদান পেলেন ৭৮ মৃত ও আহত কর্মচারীর পরিবার

0

পান্না, রাজশাহী ব্যুরো :
রাজশাহী জেলা প্রশাসনের আয়োজনে বেসামরিক প্রশাসনে কর্মরত অবস্থায় ৭৮ জন মৃত ও আহত সরকারি কর্মচারীদের পরিবারের সদস্যদের মাঝে ৬ কোটি ১৬ লাখ টাকার আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার (৬ জুলাই) বেলা ১২টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তাদের হাতে চেক তুলে দেন জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল।

মৃত কর্মচারীর পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল বলেন, চাকুরিরত অবস্থায় কোন কর্মচারী মারা গেলে, তার পরিবারটা সম্পূর্ণ অসহায় হয়ে পড়ে। তাদের কথা চিন্তা করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দ্রæত সময়ের মধ্যে অনুদানের টাকা পাঠিয়েছেন। আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ কার্যক্রম সরকারের একটি গুরুত্বপূর্ণ ও যুগান্তকারী পদক্ষেপ। এই চেক সেই অসহায় পরিবারের অনেক কাজে লাগবে। মৃত ব্যক্তিদের সন্তানদের পড়াশুনাসহ অন্যান্য কাজে ব্যয় করার জন্যেও অনুরোধ জানা জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল।

এসময় জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল আরো বলেন, চাকরিরত অবস্থায় মৃত্যু ও আহত হলে ঐ পরিবারটি যেন বিপর্যয়ে না পড়ে। সেজন্য সরকার এই মহতী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। পূর্বে এ অনুদানের পরিমাণ কম থাকলেও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তা বাড়িয়ে ৮ লাখ টাকা করেছেন।

অনুদানের চেক পেয়ে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন নগরীর ইয়াসমিন বেগম। তিনি বলেন, আমার স্বামী সড়ক ও জনপথের ড্রাইভার ছিলেন। তিনি পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। তাঁর মৃত্যুতে নিদারুণ দুঃখ-কষ্টে দিনযাপন করছিলাম। তাই মাননীয় প্রæধানমন্ত্রীর আমাদের কষ্টের কথা চিন্তা করে দ্রæত সময়ের মধ্যে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে অনুদানের টাকা পাঠিয়েছেন। বিশ্বের ইতিহাসে আমাদের প্রধানমন্ত্রীর মতো মানবিক প্রধানমন্ত্রী আছে কি না আমার জানা নেই! এটি সত্যি নজিরবিহীন।

চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- সিভিল সার্জন ডা. আবু সাইদ মোহাম্মদ ফারুক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) কল্যাণ চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবু সালেহ মো. আশরাফুল আলম, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. আব্দুস সালাম।

উল্লেখ্য, রাজশাহী জেলার বিভিন্ন সরকারি দফতরের মৃত ও আহত সরকারি কর্মচারীদের ৭৮টি পরিবারের মোট ৬ কোটি ১৬ লাখ টাকার চেক বিতরণ করা হয়।

রাজশাহীতে যুব মহিলা লীগের ২০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

0

পান্না, রাজশাহী ব্যুরো :
রাজশাহীতে যুব মহিলা লীগের ২০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে বুধবার বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়। রাজশাহী মহানগর যুব মহিলা লীগ আয়োজিত কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বিশিষ্ট সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী।

যুব মহিলা লীগের ২০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বুধবার সকালে মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যালয় সংলগ্ন স্বাধীনতা চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এরপর দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও কেক কাটা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ- সভাপতি ও বিশিষ্ট সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী।

এ সময় রাজশাহী মহানগর যুব মহিলা লীগের সভাপতি এ্যাড. ইসমত আরা ও সাধারণ সম্পাদক নিলুফার ইয়াসমিন নিলু সহ অন্যান্য নেত্রীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

রাজশাহীতে ‘মৃনাল হক সেলিব্রিটি গ্যালারি’র উদ্বোধন

0
পান্না, রাজশাহী ব্যুরো :
রাজশাহীতে ‘মৃনাল হক সেলিব্রিটি গ্যালারি’ এর উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে উপশহরে ফিতা কেটে এই গ্যালারির উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। উদ্বোধনের পর টিকেট কেটে গ্যালারিতে প্রদর্শিত বিশ্বের খ্যাতিমান মানুষের ভাস্কর্যগুলো পরিদর্শন করেন সিটি মেয়র।

এ সময় রাসিক মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন সাংবাদিকদের বলেন, লন্ডনের বিখ্যাত ‘মাদাম তুসো’ জাদুঘরের আদলে রাজশাহীতে ভাস্কর মৃণাল হকের পরিবারের উদ্যোগে গড়ে তোলা এই সেলিব্রিটি গ্যালারি শিশু-কিশোর, তরুণ-তরুণীসহ বিভিন্ন বয়স ও শ্রেণীর মানুষকে আকৃষ্ট করবে। বিশ্বের বিখ্যাত ব্যক্তিদের সম্পর্কে জানতে পারবে। আগামীতে এটি মধ্যশহরের কোথাও স্থানান্তর করা যায় কিনা সেটাও ভেবে দেখা হবে।
উদ্বোধনকালে কবিকুঞ্জের সভাপতি অধ্যাপক রুহুল আমিন প্রামাণিক, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আজাদ, গ্যালারির পরিচালক ও মহানগর আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক এ.এস.এম ওমর শরীফ রাজীব, গ্যালারির পরিচালক মনোয়ারুল হাসান প্রিন্স, ইনচার্জ কামরুল হামান মিলন, ১৪নং ওয়ার্ড (পূর্ব) আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তৌকির উদ্দিন খান খালেক সহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, প্রখ্যাত ভাস্কর মৃণাল হকের ৪০টি ভাস্কর্য নিয়ে লন্ডনের বিখ্যাত ‘মাদাম তুসো’র আদলে রাজশাহীতে ভাস্কর মৃণাল হকের পারিবারিক উদ্যোগে এই সেলিব্রেটি গ্যালারি গড়ে তোলা হয়েছে। মহানগরীর উপশহরের তিন নম্বর সেক্টরের ১৮৪ নম্বর হোল্ডিংয়ের একটি দ্বিতল ভবনে এই গ্যালারির অবস্থান। গ্যালারির প্রবেশ মূল্য রাখা হয়েছে ১০০ টাকা ও ৫০ টাকা।
দ্বিতল ভবনের সিঁড়ি বেয়ে ওপরে উঠতেই সবার চোখ পড়বে বিশ্বের অন্যতম আলোচিত চরিত্র স্পাইডার ম্যানের ওপর। যেন সিঁড়ির ওপরে মাকড়শার জালে ঝুলে রয়েছে শিশুদের প্রিয় এই মারভেল সিরিজের সেই চরিত্রটি। মহাত্মা গান্ধী, মাদার তেরেসা, বিপ্লবী চে গুয়েভারা, প্রিন্সেস ডায়ানা, ডোনাল্ড ট্রাম্প, নরেন্দ্র মোদি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় চার নেতা শহিদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম, শহিদ তাজউদ্দীন আহমদ, শহিদ ক্যাপ্টেন মনসুর আলী, শহিদ এএইচএম কামারুজ্জামান, সদ্য প্রয়াত প্রখ্যাত সাংবাদিক ও সাহিত্যিক আবদুল গাফ্ফার চৌধুরীসহ অনেকের ভাস্কর্যই স্থান পেয়েছে সেলিব্রেটি গ্যালারিতে। প্রখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক জেমস ক্যামেরনের অনবদ্য সৃষ্টি ‘অ্যাভাটার’ সিনেমার নাবি সম্প্রদায়ের জ্যাক ও নীতিরী চরিত্রের দেখাও মিলবে এই গ্যালারিতে। এখানে রয়েছে ‘লর্ড অব দ্য রিং’-এর গুল্লাম। রয়েছে বিশ্ববিখ্যাত কমেডি সিরিজ ‘থ্রি স্টুজেস’-এর তিন মূল চরিত্র। আরো ফুটবলের জীবন্ত কিংবদন্তি লিওনেল মেসি। এছাড়া কক্ষ জুড়ে নানা ভঙ্গিতে দাঁড়িয়ে আছেন বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খান, মি. বিন খ্যাত রোয়ান অ্যাটকিনসন, খ্যাতিমান অভিনেতা চার্লি চ্যাপলিন, পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ানের ক্যাপ্টেন জ্যাক স্প্যারো, ভুবন কাঁপানো কণ্ঠস্বর বব মার্লে, পপ গানের রাজা মাইকেল জ্যাকসন, গায়িকা শাকিরা। দ্বিতীয় তলার চারটি গ্যালারির বাইরে খানিকটা উঠানের মতো জায়গা রাখা হয়েছে। সেখানে সবচেয়ে বড় ভাস্কর্যটি রাখা হয়েছে। এটি ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ‘র।#

রাজশাহীতে জমে উঠেছে কোরবানির পশু কেনাবেচা

0

পান্না, রাজশাহী ব্যুরো :
রাজশাহীতে জমে উঠেছে কোরবানির পশু কেনাবেচা। কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে রাজশাহীর হাটগুলোতে কোরবানিযোগ্য গরু-ছাগলের আমদানি ও হচ্ছে বেশি। শহর ও গ্রামের হাটগুলোতে এখন পর্যাপ্ত গরু ছাগল উঠছে।
বুধবার (৬ জুলাই) সকালে রাজশাহীর সিটি হাট, তানোর উপজেলার মুন্ডুমালা হাটে গিয়ে দেখা যায় পুরো হাট গরু ছাগলে ঠাসা। ক্রেতারাও হাটে এসে ঘুরে ঘুরে পশু দেখছেন। অনেকে পছন্দের গরু ছাগল কিনছেন। বাইরের পাইকাররাও এসব হাটে আসতে শুরু করেছেন।

সন্নিকটে ঈদ চলে আসায় ক্রেতারা পশু ক্রয় করে ফিরছেন। তবে এবার অপেক্ষাকৃত ছোট আকৃতির দেশী গরু বিক্রি হচ্ছে বেশী। রাজশাহীর সবচেয়ে বড় কোরবানীর হাট রাজশাহী সিটি হাটও এখন প্রতিদিন বসছে। এখানে আমদানি হচ্ছে বিপুল পরিমান গরু-ছাগল। ঈদের আগের দিন পর্যন্ত এ হাটে পশু বেচাবিক্রি হবে। হাটের ইজারাদাররা জানান এবারের হাটে ক্রেতাদের নজর দেশীও ছোট ও মাঝারি পশুর দিকেই বেশি।

এর আগে গত রবিবার রাজশাহী সিটি পশুহাট ঘুরে দেখা যায়, হাঁক-ডাকে জমে উঠেছে হাট প্রাঙ্গণ। সকাল থেকেই হাটে প্রচুর গরু-ছাগলের সরবরাহ রয়েছে। তবে অন্য বছরগুলোর চেয়ে ক্রেতা কম বলে মনে করছেন বিক্রেতারা। তারা বলছেন, গতবছরের তুলনায় ভালো দামে গরু-মহিষ বিক্রির প্রত্যাশা রয়েছে। তবে ক্রেতা কম। দামও বলছেন কম। সামনের দিনগুলোতে ক্রেতা সমাগম বাড়বে বলে প্রত্যাশা করছেন বিক্রেতারা।

রাজশাহীর তানোরের মুন্ডুমালা বাসিন্দা আজাহার আলী ৫ টি গরু নিয়ে হাটে এসেছেন। তিনি গ্রাম থেকে গরু কিনে হাটে বিক্রি করতে নিয়ে এসেছেন। তার ৪ মণ ওজনের গরুর দাম ক্রেতারা বলছেন ৯০ হাজার এবং ৫ মণের গরুর দাম বলছেন ১ লাখ ১০ হাজার টাকা। এই ব্যবসায়ীর ভাষ্যমতে, তার কেনা দামের চেয়ে ১০-১৫ হাজার টাকা কম দাম হাঁকছেন ক্রেতা।

এই হাটে গরু বিক্রি করতে এসেছিলেন নওহাটার আসাদুল নামের এক খামারী। তিনি জানান, বিভিন্ন জায়গা থেকে বাড়ি বাড়ি গরু কিনে এসে হাটে বিক্রি করেন। ঈদের হাট জমজমাট থাকলে প্রতিটা গরুতে ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা লাভ করেন তিনি। এবারও সেই প্রত্যাশা নিয়ে গরু কিনেছেন। হাটে বিক্রেতা প্রচুর। কিন্তু ক্রেতার সংখ্যা তুলনামূলক কম। এখন হাট জমজমাট থাকলেও প্রত্যাশা অনুযায়ী বিক্রি জমে নি।

আশরাফ হোসেন নামের এক গরু খামারি জানান, গতবারের চেয়ে এবার গরুর দাম বেশি। কিন্তু গরুর উৎপাদন খরচ বিবেচনায় তেমন বেশি না। আজিজুল নামের এক ক্রেতা জানান, ৫ মণ ওজনের একটি গরু কিনতে তারা ভাগের ৭ জন এসেছেন। হাটের শুরুর দিকে তারা প্রতিবার আসেন। কারণ প্রত্যাশিত দামের মধ্যে শেষের দিকে হাটে গরু পাওয়া যায় না। এবার গরুর দাম চড়া। মহিষ ও স্বস্তি নাই। হাট-ঘুরে পছন্দ মতো গরু কিনবেন।

রাজশাহী সিটি হাট পরিচালনা কমিটির সদস্য ফারুক হোসেন ডাবলু জানান, হাটে পশুর আমদানি ভালো আছে। বড় বড় ব্যবসায়ীরার আসছেন। করোনার কারণে গতবার বাইরে থেকে ব্যাপারিরা সেভাবে আসতে পারেন নি। এবার সবাই আসছেনর। স্থানীয় পর্যায়ের ক্রেতাসহ বাইরের ক্রেতারাও পশু কিনছেন।

জানা গেছে, রাজশাহী বিভাগের আট জেলায় এবার কোরবানিযোগ্য পশু রয়েছে ২৭ লাখ ২৮ হাজার ৪৬০টি। এরমধ্যে রাজশাহী জেলায় কোরবানিযোগ্য পশু প্রস্তুত রয়েছে ৩ লাখ ৯২ হাজার ৮৫২ টি। ১৬ হাজার ৭৯ জন খামারির কাছে আছে এক লাখ ২১ হাজার ৩৭২টি গরু, দুই লাখ ৩৩ হাজার ২৩৫টি ছাগল, ৩৮ হাজার ২৪৫ টি ভেড়া ও তিন হাজার ২১১টি মহিষ। জেলায় এবার কোরবানির পশুর সম্ভাব্য চাহিদা তিন লাখ ৮২ হাজার ১১৮টি। চাহিদার চেয়ে প্রায় ১০ হাজার পশু বেশি আছে রাজশাহী জেলায়।
রাজশাহী জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ড. জুলফিকার মো. আখতার হোসেন জানান, রাজশাহীতে পশুর যোগান বেশি থাকায় এবার ইদ বাজার খামারি ও ক্রেতা উভয়ের অনুকূলে থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। যেহেতু এবার জেলায় পশু উদ্বৃত্ত আছে, একারনে কিছু পশু অবিক্রিতও থাকতে পারে।

রাজশাহীতে রেল কর্মচারিকে কুপিয়ে হত্যা

0

পান্না, রাজশাহী ব্যুরো :
স্কুলছাত্র সানি হত্যার জের কাটতে না কাটতেই রাজশাহী নগরীতে এবার রেল কর্মচারি যুবককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাত ১০টায় মহানগরীর বেলদারপাড়া মুক্তিযোদ্ধা সংসদ এলাকায় ওই যুবককে কুপিয়ে জখম করা হয়।
পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় একজন আহত হয়েছেন। তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নিহত যুবকের নাম সোহেল রানা। তিনি নগরের ১৯ নং ওয়ার্ডের শিরোইল কলোনি এলাকার আব্দুল করিমের ছেলে। সোহেল রেলওয়ে ওয়েম্যান পদে চাকুরী করতেন। আর আহতের নাম ফারুক হোসেন। তাকে হাসপাতালে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বাংলা মদ ব্যবসায়ী টগরের বাড়ীতে মদ কেনা নিয়ে সোহেল ও ফারুকের দ্ব›দ্ব হয়। এ সময় তাদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘরে। পরে টগরের বাড়ি থেকে বের হয়ে ফারুক সোহেলকে কুপিয়ে জখম করে। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। ঘটনার সময় ধস্তাধস্তিতে রাস্তার উপর পড়ে গিয়ে ফারুকও আহত হয়। এ সময় দুইজনই মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন। পরে স্থানীয়রা দুইজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক সোহেলকে মৃত ঘোষণা করেন।

বোয়ালিয়া থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম বলেন, কিভাবে সোহেল নিহত ও ফারুক আহত হয়েছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া য়ায়নি। তবে স্থানীয় লোকজন জানিয়েছে ফারুক সোহেলকে ছুরিকাঘাত করেছে। কিন্তু ফারুক বলছে তারা গাড়ির ধাক্কায় আহত হয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

বাঘার বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম আর নেই

0

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি
বাঘায় বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম (৫০)রোববার (০৩-০৭-২২) রাত ১১টায় উপজেলার বাজুবাঘা ইউনিয়নের নওটিকা গ্রামের নিজ বাস ভবনে ইন্তেকাল করেছেন। তার পিতার নাম নূর মোহাম্মদ সরকার। সোমবার (০৪-০৭-২০২২) সকাল সাড়ে ১০ টায় নিজগ্রামে জানাযা নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।
স্থানীয় বিএনপি সুত্রে জানা যায়, জীবদ্দশায় প্রায় ২৪ বছর বাজুবাঘা ইউনিয়ন বিএনপির সাথারন সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন নজরুল ইসলাম । তিনি স্ত্রী ও ২মেয়েসহ অসংখ্যগুনগ্রাহী রেখে গেছেন ।
মরহুমের আতœার মাগফেরাত ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করে বক্তব্য রাখেন, রাজশাহী জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ন আহ্বায়ক আনোয়ার হোসেন উজ্জল, বাঘা থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সহকারি অধ্যাপক জাহাঙ্গীর হোসেন,বাঘা পৌর সভার সাবেক মেয়র,আ’লীগ নেতা আক্কাছ আলী,আড়ানি পৌরসভার সাবেক মেয়র নজরুল ইসলাম, বাঘা থানা বিএনপির যুগ্ন আহ্বায়ক সাবেক চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম মলিন,সাবেক সাধারন সম্পাদক সাইফুল ইসলাম,চারঘাট থানা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক মেয়র জাকিরুল ইসলাম বিকুল,নিমপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান, বিশিষ্ট সাংবাদিক,সহকারি অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ, বাজুবাঘা ইউপি চেয়ারম্যান ও বিএনপি সভাপতি এ্যাড.ফিরোজ আহমেদ রনজু,ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি,শিক্ষক এমদাদুল হক,অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক নজরুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক এনামুল হকসহ মরহুম নজরুলের চাচা নান্টু সরকার ও মেছভাই মন্টু সরকার। জানাজায় উপস্থিত ছিলেন জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠন, শিক্ষক ও এলাকার শ্রেণীপেশার লোকজন। ##

 

বাঘায় কৃষকদের মাঝে বীজ ও সার বিতরণ

0

বাঘা (রাজশাহী)প্রতিনিধি:
রাজশাহীর বাঘায় ৫০০ জন প্রান্তিক ও ক্ষুদ্র কৃষকের মাঝে বিনা মূল্যে ০৫ কেজি উফসী রোপা আমন বীজ, ১০ কেজি ডিএপি এবং ১০ কেজি এমওপি রাসায়নিক সার বিতরণ করা হয়েছে। ২০২১-২২ অর্থ বছরে খরিপ-২ এর আওতায় ২০২২-২৩ মৌসুম উপলক্ষে রোপা আমন ধানের উৎপাদন বৃদ্ধির নিমিত্তে এসব উপকরণ বিতরণ করা হয়।

সকাল ১১ টায় উপজেলা কৃষি বিভাগের সামনে নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার এ প্রনদনা বিতরণের শুভ উদ্বোধন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল, উপজেলা কৃষি অফিসার শফিউল্লাহ সুলতান,উপজেলা নারী ভাইস চেয়ারম্যান রিজিয়া আজিজ সরকার, সমাজসেবা অফিসার মো: নাফিজ শরিফ, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা ইমরান আলী ও বাঘা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান।

উপজেলা কৃষি অফিসার শফিউল্লাহ সুলতান জানান, আমরা কোন আবাদি জমি ফাঁকা রাখতে চাইনা। এটা মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর ঘোষনা। সে মোতাবেক বাঘায় পর্যায় ক্রমে প্রায় সকল প্রকার কৃষি প্রনদনা এবং রাসায়নিক সার বিতরণ করে চলেছি। আমার বিশ্বাস এ সকল উপকরণ বিতরণের মাধ্যমে একদিকে উপকৃত হবে কৃষক, অপর দিকে কৃষি পন্যে সাবলম্বী হবে দেশ।

রাজশাহীতে তরুণকে তুলে নিয়ে গিয়ে কুপিয়ে হত্যা

0

পান্না, রাজশাহী ব্যুরো :
রাজশাহী মহানগরীতে সনি (১৮) নামে এক তরুণকে তুলে নিয়ে গিয়ে কুপিয়ে হত্যা। রোববার ৩ জুলাই রাত ৯টার দিকে নগরীর হেতেমখাঁ সবজিপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত তরুণ নগরীর রেলগেট এলাকার রফিকুল ইসলাম পাখির ছেলে।

নিহত তরুণের পিতা রফিকুল ইসলাম পাখি রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সহসভাপতি। সনি মাস দু-এক আগে বিয়ে করেছেন। রোববার তাঁর জন্মদিন ছিল।

পুলিশ জানিয়েছে, হেতেমখাঁ সবজিপাড়া এলকার সমবয়সী কিছু ছেলের সঙ্গে রেলগেট এলাকার সনিসহ আরও কয়েকজনের বিরোধ চলছিল। এর আগে দুই গ্রপের মধ্যে একাধিকবার মারামারি হয়েছে। পরে মীমাংসাও হয়েছে। কিন্তু এই বিরোধের জের ধরেই রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের সামনে থেকে সনিকে তুলে নিয়ে গিয়ে হত্যা করা হয়।

সনিসহ মোট চারজনকে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল। এই চারজনের একজনের নাম মো. নয়ন (১৯)। তিনি জানান, রাতে তাঁরা কয়েক বন্ধু সনির জন্মদিন উদ্যাপন করেন। সেখানে বাথরুমে পড়ে গিয়ে সিজার (১৮) নামের একজনের থুতনি কেটে যায়। এরপর সনি, নয়ন ও তৈয়বুর নামের আরেকজন আহত সিজারকে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছিলেন। তখনই রামেক হাসপাতালের সামনে চারজনকে একসঙ্গে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হয়। সিজারকে আহত দেখে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। পরে নয়ন তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান। আর তৈয়বুর ও সনিকে হেতেমখাঁ সবজিপাড়া এলাকায় তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে সনিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। আহত হন তৈয়বুরও।


নিহত সনির চাচা যুবরাজ জানান, দুজনকে কোপানোর পর হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পরে খবর পেয়ে দুজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। কর্তব্যরত চিকিৎসক সনিকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত তৈয়বুর চিকিৎসাধীন। কেন এ ধরনের ঘটনা তা তিনি অনুমান করতে পারছেন না।

সনি ও তাঁর বন্ধুকে রামেক হাসপাতালে আনার পর জরুরি বিভাগের সামনেই উত্তেজনা দেখা দেয়। সনি হত্যার প্রতিবাদে জড়ো হন শতাধিক নারী-পুরুষ। তারা একত্রিত হয়ে হেতেমখাঁ সবজিপাড়ার দিকে যান। এ সময় ওই এলাকাতেও উত্তেজনা দেখা দেয়। পরিস্থিতি মোকাবিলায় রামেক হাসপাতালের সামনে ও হেতেমখাঁ সবজিপাড়ায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

নগরীর বোয়ালিয়া থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এই হত্যাকাÐের ঘটনা ঘটেছে। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতরা গা-ঢাকা দিয়েছে। তাদের আটকের চেষ্টা চলছে। ময়নাতদন্তের পর সনির মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এ ঘটনায় হত্যা মামলা হবে বলেও জানান ওসি।

বাঘায় সিঙ্গার ফ্রিজ কিনে  ১০০% ক্যাশব্যাক পেল ভানুয়ারা বেগম

0

বাঘা (রাজশাহী)প্রতিনিধি:আসন্ন কোরবানীর ঈদ অফারে প্রতিদিন ফ্রি ফ্রিজে বাজিমাত” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় সিঙ্গার প্লাস এর শো রুম থেকে ফ্রিজ কিনে ক্যাচ কার্ড ঘসে ১০০% ক্যাশব্যাকে ফ্রিজ পেলেন ভানুয়ারা বেগম।

রবিবার দুপুরে সিঙ্গার শোরুমে ৫১৯৯০ টাকায় ২৯০ লিটারের একটি ফ্রিজ কেনে ক্যাচ কার্ড ঘসে ১০০% ক্যাশব্যাকে ফ্রি ফ্রিজ নিয়ে হাসি মুখে বাড়ি ফিরলেন বাগাতিপাড়া উপজেলার জয়ন্তীপুর গ্রামের ভানুয়ারা বেগম ।

জানা যায়, সিঙ্গার কোম্পানীর হেড অফিস কর্তৃক আয়োজিত এক জমকালো পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ফ্রিজটি বিতরন করা হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন, সিঙ্গার শোরুমের বাঘা শাখার ম্যানেজার  মোতাহার হোসেন,সোরুমের স্টাপ বৃন্দ ও স্থানীয়.গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

এ ব্যাপারে সিঙ্গার শোরুমের বাঘা শাখার ম্যানেজার মোতাহার হোসেন জানায়, ক্রেতাদের দোর গোড়ায় দ্রুতমত আমাদের পন্য সকলের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে সিঙ্গার কোম্পানী নানা সুযোগ সুবিধা দিয়ে যাচ্ছে। এই কার্যক্রমে ক্রেতার অংশগ্রহণকে উদ্বুদ্ধ করতে এই ক্যাচ কার্ডের অফার। এই অফার চলমান থাকবে। তাই আর দেরী নয় গুনগত মানের সিঙ্গার ফ্রিজ কিনুন ফ্রীতে পুরস্কার জিতুন।

 

সর্বশেষ আপডেট