বাঘায় গৃহবধুকে গণধর্ষণ ঃ মামলায় গ্রেফতার ১

0
771

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি
রাজশাহীর বাঘায় এক গৃহবধুকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। সোমবার (৩ মে) রাতে তিন বন্ধু এক সাথে মিলে তাকে গণধর্ষণ করা হয়। এই মামলায় সুরুজ মালিথা নামের একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
জানা যায়, বাঘা পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কলিগ্রামের রুবান মালিথার ছেলে সুরুজ মালিথা (৩৫), এলু মালিথার ছেলে ঝুন্টু মালিথা (৩৪) ও গোলমাল হোসেনের ছেলে রুজদার আলী (৪৫) সোমবার রাত ১২টার দিকে উপজেলার ২৫ বছর বয়সের দুই সন্তানের জননীর বাড়ির গ্রেট ও ঘরের দরজা ভেঙ্গে প্রবেশ করে। এ সময় তাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে। তবে এ সময় তার দুই সন্তান পাশের রুমে ঘুমে ছিল। স্বামী সপ্তাহ খানেক আগে ধান কাটতে এলাকার বাইরে গেছে। এই সুযোগে তিনবন্ধু মিলে জোরপূর্বক গণধর্ষণ করে। গৃহবধুকে পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে প্রেরণ করা হয়েছে।
এই ঘটনায় ধর্ষিতা বাদি হয়ে তিনজনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়ের পর সুরুজ মালিথাকে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে।
এ বিষয়ে বাঘা পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম টগর বলেন, যাদের নামে ধর্ষণের মামলা হয়েছে তারা এলাকায় বেপোয়ারাভাবে চলাফেরা করে। তাদের দ্রæত শাস্তি হওয়া উচিত বলে দাবি করেন।
এ বিষয়ে বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, এই ঘটনায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। ইতিমধ্যেই একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে। গৃহবধুকে পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে প্রেরণ করা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে