রাজশাহীতে পূর্ব শত্রুতার জেরে লাশ দাফনকে কেন্দ্র করে আহত ৫ গ্রেফতার ০১

0
17

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রাজশাহী কাশিয়াডাঙ্গা থানাধীন পবা উপজেলার দামকুড়া ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের দেলুয়া বাড়ি গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কতিপয় প্রভাবশালীর আক্রোশ জনিত হামলায় মসজিদ কমিটির সভাপতিসহ ৫ জন আহত হয়েছে। গ্রামবাসী সূত্রে জানা যায়, দেলুয়া বাড়ি গ্রামের মফিজ উদ্দিনের স্ত্রী সামসুন নাহারের জানাজা গতকাল শুক্রবার বিকাল ৩.২০ টায় সময় পরিবারের পক্ষ থেকে সময় নির্ধারণ ও দেলুয়াবাড়ি কবরস্থানে দাফন কার্য সম্পাদন করা হবে বলে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এ সময় মফিজ উদ্দিনের আত্মীয়-স্বজন জানাজা স্থলে উপস্থিত হয়ে বলেন, কার হুকুমে জানাজার সময় নির্ধারণ করেছো বলে মফিজ উদ্দিনের সাথে বাকবিতণ্ডায় জড়ায় সে সময় গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে মঈনুদ্দিন বলেন এখন দন্দ না করে মাটি হওয়ার পরে বসে আলোচনা সাপেক্ষে সমাধান করার কথা বলেন তিনি। তখন খাইরুল ইসলাম পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ক্ষিপ্ত হয়ে বলে তুই বলার কে এই বলেই মার ধর শুরু করে এবং অন্যনাদের মারতে হুকুম দেন। এ সময় মারপিটের ঘটনায় ৫ জন গুরুতর আহত অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত ব্যক্তিরা হলেন- দেলুয়াবাড়ী গ্রামের মইনুদ্দিন, সরোয়ার, নওশাদ, আলাউদ্দিন, ও কামরুল ইসলাম।

এদের মধ্যে সরোয়ার, ও নওশাদ গুরুতর আহত বলে আত্মীয় ও মেডিকেল সূত্রে জানা গেছে। এজাহার সূত্রে জানা যায়, কাশিয়াডাঙ্গা থানাধীন দেলুয়াবাড়ি কবরস্থানে মোঃখাইরুল ইসলাম,মোঃ মমিন, মোঃ মাইনুল, মোঃ কাজল, মোঃ ফজলু, মোঃ হাবিবুর রহমান, মোঃ আব্দুর রহিম ও মোঃ হাসিব মৃতের জানাজার সময় নির্ধারণকে কেন্দ্র করে ও পূর্ব শত্রুতার যের ধরে দেশীয় অস্ত্র লোহার হাতুড়ি, বাঁশের লাঠি-সোটা রড নিয়ে বেআইনি ভাবে দলবদ্ধ হয়ে খায়রুল ইসলামের হুকুমে প্রতিবেশী হাবিবুর রহমান, মোঃ রায়হান হাজী,র শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাথাড়ী ভাবে কিল-ঘুষি মারতে থাকেন। উক্ত ঘটনায় সরাদ্দী ও নইমুদ্দিনকে হত্যার উদ্দেশ্য লোহার হাতুড়ি দিয়ে মাথা ফাটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। নওশাদ আলীকে বাঁশের লাঠির আঘাতে ডান হাতের কব্জি ভেঙ্গে দেয়। আলাউদ্দীনের চোখে বাঁশের লাঠির আঘাতে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে ও কামরুলের বাঁশ দিয়ে নাক ফাটিয়ে দেয়। কাশিয়াডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মাসুদ পারভেজ বলেন, এ ঘটনায় থানায় মাললা হয়েছে। খাইরুল ইসলাম নামে একজন আসামীকে উক্ত মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে