বাঘায় নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত

0
26

প্রিন্স (বিশেষ প্রতিনিধি):   
রাজশাহীর বাঘা উপজেলার পৃথকভাবে ৭টি ইউনিয়ন এবং ২টি পৌরসভায় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল ১০ টায় সারাদেশ ব্যাপী নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, যৌন হয়রানী ও নারীর প্রতি সহিংসতার প্রতিবাদে একযোগ পৃথক পৃথকস্থানে এই মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
বাঘা পৌরসভার ৮, ৯ ও ১০ নং বিট পুলিশিং এর আয়োজনে শেষে উপজেলা পরিষদের হলরুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আয়োজিত সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাঘা থানা ওসি নজরুল ইসলাম। তিনি বলেন, উন্নত দেশের আদলে বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত বিট পুলিশিং সেবা কার্যক্রমের মাধ্যমে শুধু ধর্ষণ নয়, যে কোন অন্যায়ের বিরুদ্ধে ন্যায় ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করছি। এ জন্য জনগণকে সোচ্চার হয়ে পুলিশকে সহায়তা করার আহবান জানান।


আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা। প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট লায়েব উদ্দিন লাভলু। প্রধান বক্তা ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল।
বাঘা থানার এসআই লুৎফর রহমানের উপস্থাপনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আ’লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মন্টু, অধ্যাক্ষ নছিম উদ্দিন, আ’লীগ নেতা মাসুদ রানা তিলু, সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহেদ সাদিক কবির, বাঘা পৌরসভার প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান পিন্টু, উপজেলা মহিলা আ’লীগের সভাপতি ফাতেমা মাসুদ লতা, বাঘা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান, বাঘা পৌর কাউন্সিলর মোশারফ হোসেন, আ.লীঘগ নেতা কামাল হোসেন, বাঘা থানার এমসআই রনি আক্তার, নারী কাউন্সিলর মর্জিনা আক্তার, চীন প্রবাসী ছাত্রী শরমিলা সরকার ও সুমাইয়া আক্তার প্রমুখ ।
আয়োজিত সমাবেশে ধর্ষণের বিরুদ্দে সবাইকে প্রতিবাদী হওয়ার আহবান জানান বক্তারা। বলেন, যে দেশের প্রধানমন্ত্রী ও মাননীয় স্পিকার নারী, সেই দেশে নারী নির্যাতন মেনে নেয়া যায়না। আমরা সোনার বাংলায় নারী-পুরুষ এক সাথে কাজ করতে চাই। এ জন্য দরকার সম্মিলিত প্রচেষ্টা এবং সামাজিক আন্দোলন।

 

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে