বাঘায় অসুস্থ্য গরুর মাংস বিক্রি করতে গিয়ে হাতে নাতে ধরা মাংস ব্যবসায়ী মিলন

0
313

প্রিন্স (বিশেষ প্রতিনিধি):
রাজশাহীর বাঘায় অসুস্থ্য গরুর মাংস বিক্রির করতে গিয়ে হাতে নাতে ধরা খেয়েছেন মিলন সরকার নামে এক মাংস ব্যবসায়ী । পরে অসুস্থ্য গরুর মাংসসহ তাকে ঘিরে রাখে পুলিশ। শুক্রবার (৩১ জুলাই) সকালে বাঘা বাজারে মিলন সরকারের মাংস দোকানে এ ঘটনা ঘটে।
শুক্রবার সকাল সাড়ে ৫ টায় বাঘা বাজার মিলন সরকারের মাংসের দোকানে এ অভিযান চালায় বাঘা থানার পুলিশ। পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সকাল সাড়ে ৫টায় অসুস্থ্য গরুর মাংস বিক্রি করা হচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে মিলন সরকারের মাংসের দোকানে অভিযান চালানো হয়। এ সময় অসুস্থ্য গরুর মাংসসহ মিলন সরকারসহ তার মাংস দোকান ঘিরে রাখা হয়।

বাঘা বাজার নৈশ প্রহরী হজিম উদ্দীন জানান, ভোর রাতে একটি অসুস্থ গরু দোকানে আনেন মিলন সরকার। ওই সময় গরুটি জবাই করতে নিষেধ করা হয়। তার পরেও মিলন সরকার অসুস্থ্য গরুটি জবাই করে মাংস বিক্রি শুরু করেন। বিষয়টি দেখে বাঘা থানা পুলিশকে খবর দিলে দ্রæত ঘটনাস্থলে আসেন পুলিশ। পরে স্থানীয় লোকজনসহ পুলিশ মাংস ব্যবসায়ী মিলন সরকার ও অসুস্থ্য গরু মাংসর দোকান ঘিরে রাখেন।
জানা যায়, উপজেলার দক্ষিণ গাওপাড়া গ্রামের আলতাফ হোসেনের ছেলে ও বাঘা বাজারের মাংস ব্যবসায়ী মিলন সরকার ভোর ৪টার দিকে ৩ মন ওজনের একটি অসুস্থ্য গরু জবাই করে মাংস বিক্রির শরু করছিলেন। এ সময় বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশেষ অভিযান পরিচালনা করেন। তাৎক্ষনিক অসুস্থ্য গরুর মাংস বিক্রির সত্যতা পেয়ে ভোক্তা অধিকার আইনে ১০০ (১০)/২০ এবং ২০১১ (২৪)/১ ধারায় মাংস ব্যবসায়ী মিলন সরকারের এর ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। মাংসগুলো উপজেলার খায়েরহাটের হালিম মোল্লা মাস্টারের বাড়ির দক্ষিনে পদ্মা নদীর পাশে মাটিতে পুতে ফেলা হয়েছে। স্থানীয়দের অভিযোগ রয়েছে বাঘা মাংস হাটে মাংস ব্যবসায়ীরা মাঝে মধ্যে এমন ঘটনা করে। কিন্তু তারা অধিকাংশ সময় ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যায়। বিষয়টি প্রতিনিয়ত প্রশাসনের পক্ষে তদারকি করার জন্য আহবান জানিয়েছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে