রাজশাহীর বাঘায় ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক গ্রেপ্তার

0
787

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রাজশাহীর বাঘায় ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে নজরুল ইসলাম নামে একজন প্রধান শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে নিজ বাড়ি থেকে পুলিশ নজরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে। তিনি চন্ডিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

সূত্র জানায়, বুধবার বিকেলে দশম শ্রেনীতে পড়া এক স্কু

ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক গ্রেপ্তারলছাত্রীর পিতা বাদি হয়ে বাঘা থানায় মামলা দায়ের করেন। প্রলোভনে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে ব্যর্থ হয়ে প্রধান শিক্ষক রবিবার ছাত্রীর শ্লীলতাহানি ঘটান বলে অভিযোগ করা হয়।
অভিযোগে জানা গেছে, রবিবার স্কুল ছুটির পর জরিনা বেগম নামে এক আয়ার মাধ্যমে ছাত্রীকে ডেকে নেন প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম। স্কুলের কম্পিউটার রুমে ডেকে নানা কথার ছলে ছাত্রীকে পরীক্ষায়  ভালো ফলাফল করানোসহ অর্থের লোভ দেখান প্রধান শিক্ষক। বিনিময়ে শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেন শিক্ষক। এতে ছাত্রী রাজি না হলে প্রধান শিক্ষক তার শ্লীলতাহানি ঘটান। এক পর্যায়ে ছাত্রী চিৎকার দিতে চাইলে প্রধান শিক্ষক তাকে ছেড়ে দিয়ে চলে যান। এ ঘটনাতেই বুধবার মামলা হয়েছে।
বিলম্বে মামলা দায়ের প্রসঙ্গে     ছাত্রীর পিতা  বলেন, ‘স্কুল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতির কাছে মৌখিকভাবে অভিযোগ করেছিলাম। তিনি বিচার করার প্রতিশ্রুতি দিলেও তা করেননি। এ অবস্থায় নিরুপায় হয়ে বুধবার বিকেলে মামলাটি দায়ের করি।’
বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন,’অভিযোগ পাওয়ার পরে রাত ৯ টার দিকে প্রধান শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে বৃহস্পতিবার সকালে আদালতে প্রেরণ করা হবে।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে