বাঘা-লালপুর সীমানায় পুলিশের মারপিটে গুরুত্বর আহত চোরাকারবারী !

0
108

স্টাফ রিপোর্টার,বাঘা:
রাজশাহীর বাঘা ও নাটোরের লালপুর সীমান্ত এলাকায় লালুপুর থানা পুলিশের হাতে মারপিটের শিকার হয়ে গুরুত্বর আহত হয়েছে মিন্টু হোসেন নামে এক চোরাকারবারী। সোমবার (০৯-১২-১৯) সন্ধ্যার পুর্বে বসন্তপুর বিলে এ ঘটনা ঘটে। পরে আহত মিন্টুকে প্রথমে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্র ও পরে রামেক হাসপাতালে রেফার্ট করা হয়।
লালপুর থানা পুলিশের উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এস.আই) খাইরুল ইসলাম ও উপ-সহকারি পুলিশ পরিদর্শক(এ.এস.আই) সাহালম জানান, সোমবার সন্ধ্যার পুর্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা ফেন্সিডিল পাচারের অভিযোগে লালপুর এলাকার বসন্তপুর বিলে ধাওয়া করেন ওই এলাকার সুকচাঁন আলীর ছেলে চোরাকারবারি মিন্টু ইসলাম(৩৫) কে। এক পর্যায় তার কাছে তিন বোতল ফেন্সিডিল পাওয়া যায়। এ সময় সে পুলিশের সাথে ধস্তা-ধস্তি করে পালানোর চেষ্টা করলে মাটিতে পড়ে আহত হয়।
তবে মিন্টুর মা’ ফাতেমা বেগম-সহ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় একাধিক ব্যাক্তি জানান, পুলিশ মিন্টুকে ধরার পর তাকে বে-ধড়ক মারপিট করে। এক পর্যায় সে সঙ্গাহীন হয়ে পড়লে পুলিশ লালপুর থানা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে না নিয়ে বাঘায় নিয়ে আসেন।
এদিকে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্েরর কর্তব্যরত চিকিৎসক আব্দুল্লাআল কাফি জানান, মিন্টুর অবস্থা আশংকা জনক। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রামেক হাসপাতালে রেফার্ট করা হয়েছে।
বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি)নজরুল ইসলাম জানান, লোকমুখে বিষয়টি অবগত হয়েছি। ঘটনাটি আমার উপজেলার বাইরে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here