বেপরোয়া চারঘাটের সরকারী জমি দখলবাজ মন্টু কুমার

0
40

 

চারঘাট প্রতিনিধি:
রাজশাহীর চারঘাটে প্রশাসনের নির্দেশ অমান্য করে আবারও সরকারী জমিতে ঘর নির্মাণ কাজ শুরু করেছেন অবৈধ দখলবাজ শ্রী মন্টু কুমার।প্রায় তিন মাস আগে উপজেলার ফতেপুর বাজারে সরকারী জমি জোরপূর্বক দখল করে অবৈধ ভাবে ৬ টি দালান ঘর নির্মান শুরু করেন মন্টু কুমার।এলাকাবাসীর অভিযোগের পেক্ষিতে সহকারী কমিশনার (ভূমি) আনিসুর রহমান নিজে ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেন।
জানা গেছে, উপজেলার শলুয়া ইউনিয়নের ফতেপুর বাজারে রাস্তার পাশে সরকারী খাস খতিয়ানের জমি রয়েছে। ওই জমিতে শ্রী মন্টু কুমার নামের ঐ প্রভাবশালী দখলদার ৬ টি পাকা দোকানঘর নির্মাণ কাজ শুরু করেন।সরকারী জমি দখল করে জোরপূর্বক পাকা ভবন নির্মাণে এলাকাবাসী বাধা দেয়। কিন্তু এলাকাবাসীর কথা আমলে নেয়নি প্রভাবশালী দখলবাজ মন্টু।সবশেষে এলাকাবাসী পাকা ভবন নির্মাণ কাজ বন্ধের জন্য সহকারী কমিশনার (ভুমি) বরাবর অভিযোগ দেয়।
অভিযোগের ভিত্তিতে সহকারী কমিশনার(ভূমি) আনিসুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন।কিন্তু এতকিছুর পরেও ঐ দখলবাজ শ্রী মন্টু ২৭ শে নভেম্বব(বুধবার) তার নিজস্ব মাস্তান বাহিনীকে সাথে নিয়ে পুনরায় নির্মাণ কাজ শুরু করেছেন।এভাবে মাস্তান বাহিনীকে সাথে নিয়ে জোরপূর্বক সরকারী জমিতে ঘর নির্মাণ করায় ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন এলাকাবাসী।
এ ব্যাপারে শলুয়া ইউনিয়নের ঐ ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আইয়ুব আলী জানান, সরকারী জমি দখল করে এভাবে এতগুলো পাকা দোকানঘর নির্মান ঠিক না।এলাকাবাসী বিষয়টা ভূমি অফিসে জানিয়েছিল।ভূমি অফিস থেকে কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিল।কিন্তু তিনি আবারও কাজ শুরু করেছে।আমরা অসহায়,তাকে বাধা দিয়ে রাখতে পারবোনা।
প্রশাসনের নিষেধ থাকার পরেও পুনরায় অবৈধ ভাবে ঘর নির্মাণ করার বিষয়ে জানতে চাইলে মন্টু কুমার বলেন,আমার নেতারা আমাকে ঘর নির্মাণ করতে বলেছে।সেজন্যই আবার কাজ শুরু করেছি।প্রশাসনকে আমার নেতারা ম্যানেজ করবে।আমার ঘর নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে।এখন আর বাধা দিয়ে লাভ নাই।
অবৈধ ভাবে ঘর নির্মাণের ব্যাপারে চারঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ নাজমুল হক বলেন, সরকারী খাস খতিয়ানের জমিতে কোনো মতেই কাউকে পাকা ভবন নির্মাণ করতে দেয়া হবে না।খুব দ্রুত অবৈধ স্থাপনার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here